"করব মোরা মাছ চাষ থাকব সুখে বার মাস"

শিং মাছের ব্যাকটেরিয়া জনিত রোগের লক্ষন ও প্রতিকার

শিং মাছের ব্যাকটেরিয়া জনিত রোগ:

রোগ সৃষ্টিকারী উপাদান/জীবাণু:

Aeromonas spp ও Pseudomonas spp ব্যাকটেরিয়া দ্বারা সাধারনত আক্রান্ত হয়।

রোগের লক্ষনসমুহ :

১. আক্রান্ত মাছ খাদ্য গ্রহনে অনীহা প্রদর্শন করে।

২. মাছের শরীল সাদাটে বর্ণ ধারন করে।

৩. লেজে পঁচন ধরে।

৪. সাদাটে দাগ ক্রমশঃ বিস্তৃত হয় ও আক্রান্ত অংশ ক্রামে ক্ষয় হয় ।

৫. মাছের শরীরে শ্লেস্মার পরিমান কমে যায়।

৬. মাছ ভারসাম্যহীনভাবে মাঝে ঝাঁকুনি দিয়ে চলাফেরা করে ।

৭. আক্রান্ত হওয়ার ২-৭ দিনের মধ্যে ব্যাপক মড়ক দেখা দেয়।

 

প্রতিকার আ নিয়ন্ত্রণ:

 

১. পানি পরিবর্তন ও সঠিক ঘনত্ব মাছ চাষ করতে হবে ।

২. প্রতি শতাংশে ৩০০ গ্রাম হারে চুন ও ৫০০ গ্রাম হরে লবণ প্রয়োগ করতে হবে।

৩. প্রতি শতাংশে ৩ ফুট গভীরতার জন্য  ৫-৭ গ্রাম হারে সিপ্রোফ্লোক্সাসিন ৩-৪ দিন প্রয়োগ করতে হবে।

৪. প্রতি কেজি খারারের সাথে ১-২ গ্রাম  সিপ্রোফ্লোক্সাসিন

Share This:

Leave a Reply